শৈলকুপায় আ’লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, পুলিশের অভিযানে আটক ৩২

সারাদেশ

জেলা প্রতিনিধি, ঝিনাইদহ:: ঝিনাইদহের শৈলকুপায় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের পর ৩২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে ছুরি, রামদা, ঢাল, ভেলা ও লাঠিসোটা।

গত শনিবার উপজেলার বুড়ামারা শাহবাজপুর এলাকায় নিত্যানন্দপুর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা মফিজ বিশ্বাস ও সাবেক চেয়ারম্যান ফারুক বিশ্বাসের মধ্যে সামাজিক আধিপত্যকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ হয়। উভয় গ্রুপ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সজ্জিত হয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে উভয়পক্ষের ৩২ সমর্থককে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে চেয়ারম্যান মফিজ সমর্থকদের মধ্যে রয়েছে, বদরুল, খলিল, তুহিন, রবিউল, শাহাবুদ্দিন, মামুন, বুলু, আক্তার, পিকুল, আমিরুল, আব্দুল গাফফার, আব্দুল কাদের, হজরত, আশরাফুল, মোহাম্মদ আলী, সজিব ও ইকতিয়ার।

সাবেক চেয়ারম্যান ফারুক বিশ্বাসের সমর্থকদের মধ্যে গ্রেফতার হয়েছেন  শিকদার, রবিউল, ইসরাইল, মাজেদুল মুকুল হোসেন, আজিবর রহমান, জাহিদুল, আজাহার, ওবাইদুল্লাহ ও আবু বকর সিদ্দিক। গ্রেফতারকৃতরা সবাই শাহবাজপুর গ্রামের বাসিন্দা।

এছাড়াও বিভিন্ন নিয়মিত মামলায় উপজেলার বুড়ামারা গ্রামের তুজাম, খোন্দকবাড়িয়া গ্রামের ইসমাইল, দেবতলা গ্রামের জাহিদুল ও আব্দুল লতিফকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

শৈলকুপা থানার ওসি মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, বর্তমান ও সাবেক চেয়ারম্যানের সমর্থকদের মধ্যে সামাজিক আধিপত্যকে কেন্দ্র করে বিরোধ চলে আসছিল। ঘটনার দিন উভয়পক্ষ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বিরোধে জড়ালে শান্তি শৃংখলা বজায় রাখার জন্য উভয় পক্ষের ২৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদের বিরুদ্ধে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করেছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন