খাদ্যশস্য মজুদ রাখতে সিলেটে স্থাপন করা হবে আধুনিক সাইলো : খাদ্যমন্ত্রী

সারাদেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক:: খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি বলেছেন, খাদ্যশস্য মজুদ রাখতে সিলেট বিভাগীয় শহরে স্থাপন করা হবে আধুনিক ‘রাইস সাইলো’। এজন্য জায়গা খোঁজা হচ্ছে। জায়গা পাওয়া গেলেই সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে শুরু হবে এর কাজ।

সিলেটে ‘রাইস সাইলো’ হলে ধানসহ কয়েক হাজার মেট্রিক টন খাদশস্য মজুদ করে রাখা যাবে বলে জানান তিনি।

রোববার (১৫ মে) দুপুরে সিলেট শহরতলির খাদিমনগরে সিলেট সদর খাদ্য গুদাম (এলএসডি) পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।

খাদ্যমন্ত্রী আরও বলেন, সুনামগঞ্জে সম্প্রতি বোরো ফসলের কিছু ক্ষয়-ক্ষতি হলেও চাষাবাদ হয়েছে অনেক বেশি। এ থেকে আমাদের ধান-চালের শক্তিশালী একটি মজুদ গড়ে উঠবে। এছাড়াও গত আউশ ও আমন ধানেরও আমাদের প্রচুর মজুদ রয়েছে এবং সুবৃষ্টির কারণে আগামী আউশ ফসলও ভালো হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। তাই দেশে কোনোভাবেই খাদ্যসংকট তৈরি হবে না।

ধানের দাম বাড়ানো হবে কিনা এমন এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, যৌক্তিকভাবে ধানের দাম নির্ধারণ করা হয়, যাতে কৃষক তার ফসলের নায্যমূল্য পায়। সরকার কৃষকের জন্য সার, বীজ ও নানা কৃষি উপকরণ প্রণোদনা হিসেবে দিয়ে থাকে। ধানের দাম বাড়লে চালেরও দাম বাড়বে, সে কারণে যৌক্তিক যে দাম নির্ধারণ করা হয়েছে, সে দামেই ধান চাল সংগ্রহ করা হবে।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, সরকারিভাবে ভারত গম রফতানি বন্ধ করেনি, আর বন্ধ করলেও তার প্রভাব বাংলাদেশে পড়বে না। পার্শ্ববর্তী দেশগুলোর তুলনায় দেশে অনেক পণ্যের দাম কম। সরকার পণ্যের দাম জনগণের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে রাখতে নিরলস কাজ করছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব মোছাম্মত নাজমানারা খানুম, সিলেটের জেলা প্রশাসক মো. মজিবর রহমান, সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের উত্তরের ডিসি আজবাহার আলী শেখ, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আল আজাদ, সিলেটের আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক মাঈন উদ্দিন, জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক নয়ন জ্যোতি চাকমা, সিলেট সদর খাদ্য গুদামের (ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) সঞ্জয় মীতেই।

এর আগে দুপুর ১ টায় সিলেট সার্কিট হাউজে প্রশাসনিক কর্মকতাদের সাথে বৈঠক করেন খাদ্যমন্ত্রী।

সংবাদটি শেয়ার করুন