জগন্নাথপুরে সাবেক ইউপি সদস্যকে প্রাণনাশের হুমকি, থানায় জিডি

সারাদেশ

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি:: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে শাহ্ খায়রুল ইসলাম নামে সাবেক এক ইউপি সদস্যকে প্রাণনাশের হুমকী ও ফেইসবুকে অশ্লীল ভাষায় মন্তব্য করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।  খায়রুল ইসলাম উপজেলার আশারকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ৬নং ওয়ার্ডের সাবেক সদস্য।

মঙ্গলবার (১০ মে) এ ঘটনায় তিনি জগন্নাথপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন। জিডি নং-৪৬০ তারিখ-১০/০৫/২০২২ইং।

জিডির বিবরণ থেকে জানা যায়, উপজেলার আশারকান্দি ইউনিয়নের জহিরপুর গ্রামের যুক্তরাজ্য প্রবাসী শেখ আব্দুল হক তারেকের মালিকানা নাহার ভিলাসহ দেশে থাকা সম্পত্তি খায়রুল ইসলাম ও তার খালাতো ভাই আমির আলী জুয়েল দেখাশোনা ও রক্ষণাবেক্ষনের দায়িত্ব পালন করে আসছেন।  যুক্তরাজ্য শেখ আব্দুল হক সম্পর্কে খায়রুল ইসলামের মামাতো ভাই। সে হিসেবে শেখ আব্দুল হকের অনুপস্থিতিতে তার প্রতিনিধির দায়িত্বপালন ও তার মালিকানা নেহার ভিলায় যাতায়াতসহ রাত্রি যাপন করেন খায়রুল।

একই গ্রামের দ্বীনুল ইসলাম বাবুল গং দের সাথে খায়রুলের মামাতো ভাই শেখ আব্দুল হক তারেকের জহিরপুর মৌজার জে,এল নং  ১১১/১১২, দাগ নং ৩৯০ উক্ত ভূমি নিয়ে বিরোধ দেখা দেয়। খায়রুল তার মামাতো ভাইয়ের প্রতিনিধির দায়িত্ব নিলে দ্বীনুল ইসলাম বাবুল ও তার সহযোগিরা খায়রুল ও তার খালাতো ভাই আমির আলী জুয়েল, ভাতিজা এমেল রাজা চৌধুরীকে প্রাণনাশের হুমকিসহ ফেইসবুক আইডি দিয়ে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে মানহানিকর পোষ্ট লিখে এবং মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসিয়ে দেওয়ার প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন।

জিডিতে খায়রুল ইসলাম আরও উল্লেখ করেন, তিনি জহিরপুর গ্রামে গেলে কিংবা রাস্তাঘাটে যেখানে সুযোগ মতো পাবে খুন করে লাশ গুম করার হুমকি দেওয়া হয়। সানুর মিয়া নামের এক লন্ডন প্রবাসীর ফেইসবুক আইডি থেকে খায়রুল ও তার খালাতো ভাইয়ের ছবি ব্যবহার করে মানহানিকর পোষ্ট ছড়িয়ে এবং মোবাইল নং০০৪৪৭৪৮৮—–২৯৬ থেকে প্রাননাশের হুমকি দেয়। এমতাবস্থায় বিবাদীদের হুমকির কারনে নিরাপদে রাস্তা-ঘাটে চলাফেরা কিংবা বাড়ি-ঘরে থাকার সাহস পাচ্ছেন না খায়রুল ইসলাম।

বিবাদীদের দ্বারা যেকোন সময় যেকোন স্থানে খায়রুল ও নাহারভিলায় বসবাসরত তার খালাতো ভাইসহ অন্যান্য আত্মীয়-স্বজনের প্রাণনাশসহ জানমালের যেকোন ক্ষয়ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা ও তার বিরুদ্ধে যেকোন মিথ্যা মামলা মোকদ্দমা দায়ের করিয়া অযথা হয়রানি করা হতে পারে বলে তিনি জিডিতে উল্লেখ করেন।

এই বিষয়ে জগন্নাথপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, শাহ্ খায়রুল ইসলাম বাদী হয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছেন। তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থ্য গ্রহণ করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন