অবশেষে ম্যানসিটিতেই হালান্ড

খেলাধুলা

ক্রীড়া ডেস্ক:: বিষয়টা নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল গতকালই। অপেক্ষা ছিল আনুষ্ঠানিক ঘোষণার। সেটাও চলে এলো অবশেষে। ম্যানচেস্টার সিটি জানিয়ে দিয়েছে, আর্লিং ব্রাউট হালান্ড যাচ্ছেন তাদের দলেই।

আজ মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে বিষয়টি জানিয়েছে কোচ পেপ গার্দিওলার দল। সেখানে বলা হয়, ‘ম্যানচেস্টার সিটি নিশ্চিত করছে, আমরা আগামী ১ জুলাই ২০২২ স্ট্রাইকার আর্লিং হালান্ডকে দলে ভেড়ানোর বিষয়ে বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের সঙ্গে সম্মত হয়েছি। এখন ক্লাব খেলোয়াড়ের সঙ্গে চুক্তির নানা বিষয়াদি চূড়ান্ত করছে।’

ইএসপিএন জানাচ্ছে, ক্লাবটির সর্বোচ্চ বেতনভুক্ত খেলোয়াড় হিসেবেই সিটিতে যাচ্ছেন হালান্ড। কেভিন ডি ব্রুইনা বর্তমানে ক্লাবটি থেকে প্রতি সপ্তাহে ৪ কোটি টাকা আয় করে থাকেন। হালান্ডও সেখানে প্রায় একই বেতন পাবেন।

সিটি এত বেতন দেবেই না কেন? নরওয়েজিয়ান এই স্ট্রাইকারকে নিয়ে যে দলবদলের বাজারে রীতিমতো কাড়াকাড়িই পড়ে যাচ্ছিল! বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদ, বায়ার্ন মিউনিখের মতো দলের চোখ ছিল তার ওপর।

তাকে নিয়ে কাড়াকাড়ির পেছনেও কারণ আছে। ২০২০ এর জানুয়ারিতে যখন রেড বুল সালজবুর্গ থেকে ডর্টমুন্ডে যোগ দিয়েছেন, তখনই ছিল কিছুটা। গেল মৌসুমে করেছেন ৪১ ম্যাচে ৪১ গোল। জাতীয় দলের হয়ে ২০১৯ সালে অভিষেক তার, এরপর থেকে ১৭ ম্যাচে গোল তার ১৫টি। আর চলতি মৌসুমে ক্লাব ও জাতীয় দলের হয়ে ৩৪ ম্যাচ খেলে গোল করেছেন ৩৬টি।

গেল গ্রীষ্মকালীন দলবদল মৌসুমে একজন স্ট্রাইকারের জন্য গার্দিওলার দল হন্যে হয়েই ঘুরেছে দলবদলের বাজারে। টটেনহ্যাম হটস্পার স্ট্রাইকার হ্যারি কেইনকে দলে ভেড়ানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছে শেষমেশ। গ্যাব্রিয়েল জেসুসের ওপর তেমন ভরসা ছিল না কোচ গার্দিওলার। সে কারণে চলতি মৌসুমে বেশিরভাগ ম্যাচে দলটি খেলেছে স্ট্রাইকার ছাড়াই।

তবে চলতি মৌসুমে দলটি বেশ তৎপর, স্ট্রাইকারের জন্য গ্রীষ্মকালীন দলবদলের অপেক্ষায় থাকেনি। গেল জানুয়ারিতে রিভারপ্লেট থেকে দলে ভিড়িয়েছে ইউলিয়ান অ্যালভারেজকে। যদিও তিনি এখনো দলে যোগ দেননি, আধ মৌসুমের ধারে তিনি রয়ে গেছেন তার ‘সাবেক’ ক্লাবেই। তার পর এবার হালান্ডকেও দলে ভেড়াল সিটিজেনরা।

সংবাদটি শেয়ার করুন