ম্যারাডোনার সেই জার্সি নিয়ে এ কি বললেন শিলটন?

খেলাধুলা

ক্রীড়া ডেস্ক:: দুই বছর আগে না-ফেরার দেশে পাড়ি জমিয়েছেন আর্জেন্টাইন ফুটবল কিংবদন্তি দিয়াগো ম্যারাডোনা। তিনি ফুটবল ইতিহাসে অমর হয়ে আছেন অসাধারণ সব কীর্তি, বিশেষ করে ছিয়াশির বিশ্বকাপে সেই ‘হ্যান্ড অব গড’ গোলের জন্য। ওই বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে যে জার্সি পরে দুই গোল করেছিলেন ম্যারাডোনা, সেই জার্সিটা সম্প্রতি নিলামে ৭৭ কোটি ৪৩ লাখ ৯৪ হাজার ৬৭২ টাকার রেকর্ড মূল্যে বিক্রয় হয়েছে। কিন্তু সেই জার্সি নিয়ে খোঁচা দিতে ছাড়েননি পিটার শিলটন।

আর্জেন্টিনার সর্বশেষ বিশ্বকাপ জয়ের সেই ফাইনালে শিলটন ছিলেন ইংল্যান্ডের গোলকিপার। ম্যারাডোনার হাত দিয়ে করা গোলের জন্য তিনি প্রায়ই সমালোচনা করেন। এবার ম্যারাডোনার জার্সি বিক্রির পর তিনি আবারও মাঠে নেমেছেন। চাঁছাছোলা ভাষায় বলেছেন, ম্যারাডোনা ওই জার্সি এত দাম দিয়ে কেনা তো দূরের কথা, সেটা দিয়ে তিনি নাকি তার বাসার থালবাসনও মাজাঘষা করবেন না! সেদিন ম্যাচ শেষে ম্যারাডোনার সঙ্গে জার্সি বদল করেছিলেন ইংলিশ ফুটবলার স্টিভ হজ, এটাও নাকি শিলটন জানতেন না।

‘দ্য সান’কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে শিলটন বলেছেন, ‘সেদিন যা হয়েছে, এরপর চীনের সব চায়ের বিনিময়েও আমি ম্যারাডোনার সঙ্গে জার্সি বদলাতাম না। এই জার্সি আমি ঘরের কাজেও লাগাতাম না, এমনকি বাংলোর থালাও মুছতাম না ওটা দিয়ে। আমি এবং আরো কয়েকজন আছে, তারা যদি জানত ড্রেসিংরুমে হজের কাছে সে জার্সি আছে, তাহলে সেটা আর ড্রেসিংরুম থেকে বের হতো না। ম্যাচের ওই উত্তেজনার মাঝে ওটা কুচি কুচি করে ছিঁড়ে ফেলা হতো। হজ জানত যে, ঘটনাটা আমাদের বললে কী হতো।  তাই সে গোপন করেছে। ‘

ম্যারাডোনার ওপর ক্ষোভ থাকলেও সাবেক সতীর্থ যে সেই জার্সি বিক্রি করে মোটা অঙ্কের টাকা পেয়েছেন, তাতে খুশি শিলটন। ছিয়াশি বিশ্বকাপ ফাইনালের অধিনায়ক আরো বলেন, ‘আমরা এতটাই রেগেছিলাম যে এখন মনে হচ্ছে, না জানানোটাই ভালো হয়েছে। আমি খুশি, ওই ম্যাচ থেকে ইংল্যান্ডের একজন কিছু পেয়েছে। আমরাই শেষ হাসিটা হাসলাম। বিশ্বকাপে ওভাবে প্রতারণার শিকার হওয়ার আদর্শ বিচার এটা। একজন ফুটবলারের করা সেরা ব্যবসা এটা। আমরা কেউই ভাবতে পারিনি এর দাম এত বেশি হবে। ‘

সংবাদটি শেয়ার করুন