টানা তৃতীয়বারের মতো চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে লিভারপুল

খেলাধুলা

ক্রীড়া ডেস্ক:: ‘ভয়’ জয় করে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল নিশ্চিত করেছে লিভারপুল। সেই সঙ্গে চলতি মৌসুমে কোয়াড্রপল জয়ের স্বপ্নও বাঁচিয়ে রাখল অলরেডরা।

প্রত্যাবর্তনের গল্প লেখা নতুন নয় লিভারপুলের জন্য। তার আরেকটি প্রদর্শনী হলো ভিয়ারিয়ালের মাঠে। চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালের ফিরতি লেগে দুই গোলে পিছিয়ে পড়েও ৩-২ ব্যবধানের জয় পেয়েছে ইউর্গেন ক্লপের দল।

প্রথম লেগে ঘরের মাঠ অ্যানফিল্ডে ২-০ গোলে জিতেছিল ইংলিশ জায়ান্টরা। দুই লেগ মিলিয়ে ৫-২ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে ক্লপের অধীনে টানা তৃতীয়বারের মতো চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে উঠল লিভারপুল।

যে ভয় নিয়ে ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে দ্বিতীয় লেগ খেলতে স্পেন সফরে গিয়েছিল অলরেডরা, শুরুতেই সে ভয়ের ব্লেডে পা কাটে লিভারপুলের। প্রথমার্ধেই দুই গোল করে দুই লেগ মিলিয়ে ২-২ ব্যবধানে সমতায় ফেরে উনাই এমেরির দল।

ম্যাচের মাত্র তৃতীয় মিনিটে ভিয়ারিয়ালকে এগিয়ে দেন দিয়া। এমেরির শিষ্যরা দ্বিতীয় গোল পায় ৪১তম মিনিটে। ভিয়ারিয়ালকে সমতায় ফেরানো গোল এনে দেন কোকুইলিন। দুটি গোলেই অ্যাসিস্ট করেন কাপু।

কিন্তু এই ফরাসি ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডারই শেষ মুহূর্তে মাঠ ছাড়েন লাল কার্ড দেখে। ৮৫তম মিনিটে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখেন কাপু। তার আগে দুর্দান্ত ক্যামব্যাকের গল্প লেখে ক্লপের দল। সালাহর পাসে ৬২তম মিনিটে লিভারপুলকে প্রথম গোল এনে দেন ফাবিনহো।

এই ব্যবধান ধরে রাখলেও ফাইনাল নিশ্চিত হতো অলরেডদের। তবে আরও দুই গোলে ফিরতি লেগেও জয় তোলে নেয় তারা। ৬৭তম মিনিটে আলেক্সান্দার-আরনল্ডের অ্যাসিস্টে দিয়াজের গোলের পর ৭৪তম মিনিটে কেইতার পাসে মানের গোল। এমেরির শিষ্যদের ম্যাচে ফেরার আশা শেষ করে দেয় লিভারপুল।

সেই সঙ্গে চ্যাম্পিয়নস লিগের সর্বশেষ পঞ্চম মৌসুমে তৃতীয়বারের মতো ফাইনাল নিশ্চিত করল অলরেডরা। ২০১৭-১৮ ও ২০১৮-১৯ মৌসুমেও ফাইনাল খেলেছে লিভারপুল। তার মধ্যে ২০১৮-১৯ মৌসুমে জিতেছে শিরোপা।

সংবাদটি শেয়ার করুন