ঈদ কাটতে পারে ঝড়-বৃষ্টিতে

অন্যান্য

খবরটুডে ডেস্ক:: রোজার মধ্যে গরমের অস্বস্তি যে সময়ে ঝড়-বৃষ্টিতে কমার আভাস মিলেছে, তখন উদযাপিত হবে ঈদ।

চলমান তাপপ্রবাহ ধীরে ধীরে কমে আগামী শনিবার থেকে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বাড়বে বলে আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে।

চলতি মৌসুমে বৈশাখের শুরুতেই দেশজুড়ে গরমের তেজ বাড়তে থাকে। মাঝবৈশাখে এসে টানা পাঁচ দিন ধরে ঢাকাসহ দেশের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে বয়ে যাচ্ছে মৃদু থেকে তীব্র তাপপ্রবাহ।

বুধবার ফরিদপুর, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, রাজশাহী, পাবনা ও রাঙামাটি জেলাসহ খুলনা বিভাগের উপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছিল। পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায়ও তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে বলে আবহাওয়া বিভাগ জানিয়েছে।

বুধবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে রাজশাহীতে ৩৮.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় তাপমাত্রা উঠেছিল ৩৪.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে।

এর মধ্যে নেত্রকোণা, সিলেট, রংপুর, সৈয়দপুর, ডিমলা, রাজারহাটে বৃষ্টিপাত হয়েছে।

আবহাওয়াবিদ শাহীনুল ইসলাম জানান, বজ্রসহ বৃষ্টিপাতে কোথাও কোথাও তাপমাত্রা সামান্য কমছে। তবে অস্বস্তিকর গরম অব্যাহত রয়েছে।

“তাপপ্রবাহ আগামীকাল বৃহস্পতিবারও অব্যাহত থাকবে বিরাজমান এলাকাগুলোয়। বৃষ্টি না থাকায় সর্বত্র গরমের অনুভূতিও বেশি হচ্ছে। শুক্রবার ঝড়বৃষ্টির প্রবণতা রয়েছে। শনিবার থেকে তাপপ্রবাহ প্রশমিত হয়ে আসতে পারে।”

আগামী সপ্তাহে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বাড়ার আভাস রয়েছে বলে জানান এ আবহাওয়াবিদ।

আগামী সপ্তাহের মাঝামাঝিতে ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে। ফলে আভাস অনুযায়ী, তখন ঝড়-বৃষ্টি হতে পারে।

অধিদপ্তরের বৃহস্পতিবারের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দুয়েক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়ার সঙ্গে প্রবল বিজলী চমকসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে।

আগামী ৫ দিনের পূর্বাভাসে আবহাওয়া অধিদপ্তর বলেছে, বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টির প্রবণতা বাড়তে পারে।

এবার দেশে চৈত্রের শেষে এক দফা তাপপ্রবাহ বয়ে যায়। বৈশাখের শুরুর দিন কোথাও কোথাও ঝড়বৃষ্টিও হয়। এতে অসহনীয় গরমের ভাব কেটে কিছুটা স্বস্তি আসে। কিন্তু শনিবার থেকে ফের তাপমাত্রা বাড়তে থাকায় অস্বস্তিকর গরম বিরাজ করছে সর্বত্র।

এক সপ্তাহ আগে দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রাজশাহীতে ৪১.২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে উঠেছিল।

সংবাদটি শেয়ার করুন