নাগরিকদের হেলথ কার্ড প্রদান করা হবে : প্রধানমন্ত্রী

জাতীয় শীর্ষ সংবাদ

খবরটুডে ডেস্ক:: দেশের নাগরিকদের হেলথ কার্ড প্রদান করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, কমিউনিটি পর্যায়ের খানাসদস্যদের স্বাস্থ্য-তথ্য সংগ্রহ করে প্রতিটি ব্যক্তির জন্য হেলথ আইডি প্রদান কার্যক্রম ৩২টি উপজেলায় চলমান রয়েছে। পর্যায়ক্রমে সারাদেশে হেলথ আইডি প্রদান করা হবে।

কমিউনিটি ক্লিনিকের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এক বাণীতে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) বাংলাদেশে কমিউনিটি ক্লিনিকের ২২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী।

বাণীতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকারের পদক্ষেপের কারণে স্বাস্থ্যখাতে অর্জিত ব্যাপক সাফল্য আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে দৃষ্টান্ত হিসেবে পরিচিতি পাচ্ছে।

তিনি বলেন,  আওয়ামী লীগ সরকারের ১৯৯৬-২০০১ মেয়াদের শুরুতেই আমরা দেশব্যাপী প্রতি ৬ হাজার গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর জন্য একটি করে মোট ১৮ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি।  ২০০১ সালের মধ্যেই আমরা ১০ হাজার ৭ শত ২৩টি অবকাঠামো স্থাপনপূর্বক প্রায় ৮ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিকের কার্যক্রম চালু করি।

বিএনপি-জামাত জোট সরকার ২০০১ সালে ক্ষমতায় এসে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে কমিউনিটি ক্লিনিক কার্যক্রম বন্ধ করে দেয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, ২০০৯ সালে দেশ পরিচালনার দায়িত্ব নিয়ে আমরা আবার কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপনের কাজ শুরু করি। বর্তমানে মোট ১৪ হাজার ১০০ শত ৫৮টি কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মাণ সম্পন্ন হয়েছে এবং ১৪ হাজার ১০০ শত ২৭টি কমিউনিটি ক্লিনিকে কোভিড ভ্যাকসিন প্রদানসহ প্রাথমিক স্বাস্থ্য, পরিবার পরিকল্পনা ও পুষ্টিসেবা কার্যক্রম চালু রয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, কমিউনিটি ক্লিনিক থেকে সারাদেশের প্রান্তিক জনগণের স্বাস্থ্য, পরিবার পরিকল্পনা ও পুষ্টি সেবাসহ বিনামূল্যে ৩০ ধরনের ওষুধ ও স্বাস্থ্যসেবা সামগ্রী প্রদান করা হচ্ছে। সেবাগ্রহীতার সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার পাশাপাশি সেবার পরিধি সম্প্রসারিত হওয়ায় চার কক্ষ বিশিষ্ট নতুন নকশায় কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মাণ করা হচ্ছে। ২০১৭ থেকে এ পর্যন্ত ১ হাজার ২৮৭টি নতুন নকশার কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মাণ করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কমিউনিটি ক্লিনিকে সেবার পাশাপাশি কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন গ্রহণ এবং স্বাস্থ্য-সুরক্ষা বিষয়ক নিয়মনীতি মেনে চলার বিষয়ে জনগণকে অবহিত করতে হবে। দেশের স্বাস্থ্যখাতের সকল ক্ষেত্রে কমিউনিটি ক্লিনিক অগ্রণী ভূমিকা রাখবে বলে সরকার প্রধান আশা প্রকাশ করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন