রাশিয়ায় ফেসবুক-ইনস্টাগ্রামে আদালতের নিষেধাজ্ঞা

আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: ফেসবুকের কর্ণধার প্ল্যাটফর্ম মেটাকে চরমপন্থি আখ্যা দিয়ে রাশিয়ায় ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম নিষিদ্ধ করেছে আদালত।

এর আগেই, রাশিয়ায় ফেসবুক নিষিদ্ধ হয়। যখন মেটা জানায়, তারা ইউক্রেনের স্যোশাল মিডিয়া ব্যবহারকারীদের রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এবং ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে পাঠানো মস্কোর সেনাদের বিরুদ্ধে সহিংসতার আহ্বান জানিয়ে বার্তা পোস্ট করার অনুমতি দেবে, তখনই ইনস্টাগ্রামের ব্যাপারেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।

যদিও, হোয়াটসঅ্যাপ কিংবা ফেসবুক মেসেঞ্জারে কোনো নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়নি।

এদিকে, মস্কোর তাভেরস্কির জেলা আদালতের বিচারক ওলগা সোলোপভা জানিয়েছেন, মেটা নিষিদ্ধ করার এই আবেদনের অনুমোদন দিয়েছেন তিনি। মেটা প্ল্যাটফর্ম সাময়িকভাবে তাদের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে রুশ বাহিনীর বিরুদ্ধে সহিংসতার আহ্বান জানানোর অনুমতি দিয়েছে। সাধারণত মেটা এ ধরনের পোস্টে অনুমোদন দেয় না। প্রসিকিউটর জেনারেলের কার্যালয় উল্লেখ করেছে, রাশিয়ার নাগরিকদের প্রতি ঘৃণা ও শত্রুতা উসকে দিতে এই ধরনের পদক্ষেপকে অনুমোদন দিয়েছে তারা।

মস্কো টাইমসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, রাশিয়ার প্রসিকিউটর জেনারেলের কার্যালয় জানায় ৫০টি ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম পোস্ট ‘চরমপন্থি’। রুশ সেনাবাহিনী সম্পর্কে সেখানে ভুয়া তথ্য ছিল বলে উল্লেখ করা হয়েছে৷ যদিও প্রসিকিউটর জেনারেলের অফিসের মত, ‘ভুয়া’, এবং ‘চরমপন্থি’ বিষয়বস্তু প্রকাশ্যে বিতরণ করা অসম্ভব। ওই বিভাগের তরফে বলা হয়েছে, যে রুশ ব্যবহারকারীরা বিদেশ থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করেন বা ভিপিএন ব্যবহার করেন তাদের চিন্তার কোনো কারণ নেই। তাদের ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামে পোস্টগুলি চরমপন্থি কার্যকলাপ হিসেবে বিবেচিত হবে না।

সংবাদটি শেয়ার করুন