সিলেটে ধান কাটা নিয়ে সংঘর্ষ, প্রাণ গেল পল্লী চিকিৎসকের

সারাদেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক:: সিলেটে বিরোধী জমিতে ধান কাটতে নিষেধ করতে গিয়ে সংঘর্ষে নিজাম উদ্দিন নামে এক পল্লী চিকিৎসক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরও ২০ জন আহত হন। আহতরা সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এদের মধ্যে চারজনকে আটক করেছে পুলিশ। নিহত পল্লী চিকিৎসক নিজাম উদ্দিন বাজারতল গ্রামের মৃত বশির উদ্দিনের ছেলে।

শনিবার (৯ এপ্রিল) সকালে শহরতলীর খাদিমনগরের সাহেবের বাজারের বাজারতল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা বলছে, দুই একর জমি নিয়ে পল্লী চিকিৎসক নিজাম উদ্দিন ও একই এলাকার নয়ন মিয়ার মধ্যে বেশ অনেকদিন ধরে বিরোধ চলছিল। বিষয়টি মীমাংসার জন্য এলাকায় শালিসের আয়োজন করা হয়। শালিস থেকে দুই পক্ষকেই ওই জমি চাষাবাদ করতে নিষেধ করা হয়। শালিসকারীরা নিজেদের মানুষ দিয়ে বিরোধপূর্ণ জমি চাষাবাদের ব্যবস্থা করেন। সিদ্ধান্ত হয়, যে পক্ষ শালিসে জমির মালিকানা পাবে- তারা ফসল নেবে। এই পরিস্থিতিতে শনিবার সেহরির পরে অর্ধশতাধিক লোক নিয়ে নয়ন মিয়ার পক্ষের লোকজন বিরোধপূর্ণ জমির ধান কাটতে যান। খবর পেয়ে নিজাম উদ্দিন ও তার ভাই আকরাম উদ্দিন ঘটনাস্থলে পৌঁছালে ওপর পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এ সময় দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হলে ঘটনাস্থলেই নিহত হন নিজাম উদ্দিন। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের আরও ২০ জন আহত হন। এ ঘটনায় দুপুরে সিলেট ওসমানী হাসপাতাল থেকে আজিজুর রহমান (৪২), মকবুল মিয়া (৪১), সামছুল আলম (৪৩) ও ছয়ফুল আলম (৪০) নামে চারজনকে আটক করেছে ‍পুলিশ।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে এসএমপির এয়ারপোর্ট থানার ওসি খান মুহাম্মদ মাইনুল জাকির বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। দুপুরে চারজনকে আটক করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেপ্তার করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন