‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০২০’ এর আসর বসতে যাচ্ছে আগামী ২৩ মার্চ

বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক:: চলচ্চিত্রের সবচেয়ে সম্মানজনক পুরস্কার ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০২০’ এর আসর বসতে যাচ্ছে আগামী ২৩ মার্চ। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হবে বলে সোমবার বিকেলে গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের উপসচিব (চলচ্চিত্র-১) সাইফুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ২৩ মার্চ ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০২০’ প্রদান করা হবে। প্রধানমন্ত্রী হয়তো ভার্চুয়ালি যুক্ত থাকবেন। তার সরাসরি আয়োজনে উপস্থিত থাকা বা না থাকার বিষয়টি এখনও চূড়ান্ত হয়নি। তবে ২৩ মার্চ প্রদান করা হবে এটা নিশ্চিত। এর আগে ১৫ ফেব্রুয়ারি তথ্য মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে ২৭ টি ক্যাটাগরিতে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়েছিল।

এবার যৌথভাবে শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র বিভাগে পুরস্কার পেয়েছে ‘গোর’ ও ‘বিশ্বসুন্দরী’ সিনেমা। ‘বিশ্বসুন্দরী’ সিনেমার জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেতা বিভাগে পুরস্কার পেয়েছেন সিয়াম আহমেদ এবং ‘গোর’ সিনেমার জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর পুরস্কার পেয়েছেন রোজালিন দীপান্বিতা মার্টিন। আজীবন সম্মাননা পেয়েছেন আনোয়ারা বেগম ও রাইসুল ইসলাম আসাদ।

এবার শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র পরিচালকের পুরস্কার পেয়েছেন গাজী রাকায়েত হোসেন (গোর)। শ্রেষ্ঠ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের পুরস্কার জিতেছে সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত ‘আড়ং’। শ্রেষ্ঠ প্রামাণ্য চলচ্চিত্রের পুরস্কার পেয়েছে ‘বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক জীবন ও বাংলাদেশের অভ্যুদয়’। পার্শ্ব চরিত্রে শ্রেষ্ঠ অভিনেতার পুরস্কার পেয়েছেন ফজলুর রহমান বাবু (বিশ্বসুন্দরী) ও অপর্ণা ঘোষ (গণ্ডি)।

খল চরিত্রে শ্রেষ্ঠ অভিনেতার পুরস্কার পেয়েছেন মিশা সওদাগর (বীর)। শ্রেষ্ঠ শিশুশিল্পীর পুরস্কার পেয়েছে মুগ্ধতা মোরশেদ ঋদ্ধি (গণ্ডি)। শিশুশিল্পী শাখায় বিশেষ পুরস্কার পেয়েছে মো. শাহাদৎ হাসান বাঁধন (আড়ং, সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত)।

শ্রেষ্ঠ সংগীত পরিচালক হিসেবে পুরস্কার পেয়েছেন বেলাল খান (হৃদয় জুড়ে)। শ্রেষ্ঠ নৃত্য পরিচালক হিসেবে পুরস্কার পেয়েছেন প্রয়াত মো. সহিদুর রহমান (বিশ্বসুন্দরী)। শ্রেষ্ঠ গায়কের পুরস্কার পেয়েছেন ইমরান মাহমুদুল (বিশ্বসুন্দরী)। শ্রেষ্ঠ গায়িকার পুরস্কার পেয়েছেন দিলশাদ নাহার কনা (বিশ্বসুন্দরী) ও সোমনূর মনির কোনাল (বীর)। শ্রেষ্ঠ গীতিকারের পুরস্কার পেয়েছেন কবির বকুল (বিশ্বসুন্দরী)। শ্রেষ্ঠ সুরকার বিভাগে পুরস্কার পেয়েছেন ইমরান মাহমুদুল (বিশ্বসুন্দরী)।

শ্রেষ্ঠ কাহিনিকার বিভাগে পুরস্কার পেয়েছেন গাজী রাকায়েত হোসেন (গোর)। শ্রেষ্ঠ চিত্রনাট্যকারের পুরস্কার পেয়েছেন গাজী রাকায়েত হোসেন (গোর)। শ্রেষ্ঠ সংলাপ রচয়িতার পুরস্কার পেয়েছেন ফাখরুল আরেফীন খান (গণ্ডি)। শ্রেষ্ঠ সম্পাদকের পুরস্কার পেয়েছেন মো. শরিফুল ইসলাম (গোর)। শ্রেষ্ঠ শিল্প নির্দেশক বিভাগে পুরস্কার পেয়েছেন উত্তম কুমার গুহ (গোর)।

শ্রেষ্ঠ চিত্রগ্রাহক হিসেবে পুরস্কার পেয়েছেন পঙ্কজ পালিত ও মো. মাহবুব উল্লাহ নিয়াজ (গোর)। শ্রেষ্ঠ শব্দগ্রাহক হিসেবে পুরস্কার পেয়েছেন কাজী সেলিম আহম্মেদ (গোর)। শ্রেষ্ঠ পোশাক ও সাজসজ্জায় পুরস্কার পেয়েছেন এনামতারা বেগম (গোর)। শ্রেষ্ঠ মেকআপম্যান হিসেবে পুরস্কার পেয়েছেন মোহাম্মদ আলী বাবুল (গোর)।

সংবাদটি শেয়ার করুন