জগন্নাথপুরে গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর হত্যা : ফের রিমান্ডে ৩ আসামি

সারাদেশ

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে শাহনাজ পারভীন জ্যোৎস্নাকে (৩৮) সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় গ্রেফতারকৃত তিন আসামির ফের ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। রোববার (২৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সুনামগঞ্জ জেলা জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নুসরাত জাহান এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। আলোচিত এ হত্যাকাণ্ডের গ্রেফতারকৃত আসামিরা হল জগন্নাথপুরের অভি মেডিকেল হলের মালিক জিতেশ চন্দ্র গোপ, মুদি দোকানি অনজিৎ গোপ ও অরূপ ফার্মেসির মালিক অসিত গোপ।

বিষটির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন সুনামগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট খায়রুল কবির রুমেন।

ওই তিন আসামিকে আদালতে হাজির করে প্রত্যেকের আরও ৮ দিন করে রিমান্ড প্রার্থনা করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডির পরিদর্শক লিটন দেওয়ান। শুনানি শেষে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য প্রত্যেক আসামির আরও ৩ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। রিমান্ড মঞ্জুর হওয়ার পর তিন আসামিকে সিআইডি তাদের হেফাজতে নিয়েছে বলে জানান তিনি।

এর আগে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি দুপুরে জগন্নাথপুরের একটি ফার্মেসি থেকে শাহানা পারভিন জ্যোৎস্নার ৬ টুকরা মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

৩৮ বছরের জ্যোৎস্না জগন্নাথপুর পৌরসভার নয়াবাজার কলোনিতে দুই মেয়ে ও এক ছেলেকে নিয়ে থাকতেন। তার স্বামী সুরুক মিয়া সৌদি আরব প্রবাসী।

নিহতের ভাই হেলাল মিয়া জিতেশ গোপকে প্রধান আসামি করে ওই দিন রাতেই জগন্নাথপুর থানায় মামলা করেন।

এরপর পুলিশ ফার্মেসির মালিক জিতেশ চন্দ্র গোপ অভি, মুদি দোকানি অনজিৎ গোপ ও পাশের অরূপ ফার্মেসির মালিক অসীত গোপকে গ্রেপ্তার করে।

সংবাদটি শেয়ার করুন