শক্তিশালী ঝড়ের কবলে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেনে রেড অ্যালার্ট

আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: যুক্তরাষ্ট্র জুড়ে স্থানীয় সময় গতকাল বৃহস্পতিবার পাঁচ কোটির বেশি মানুষ বিপজ্জনক আবহাওয়ার ব্যাপারে দেওয়া সতর্কতার মধ্যে পার করেছে। দেশটির জাতীয় আবহাওয়া বিভাগ (এনডাব্লিউএস) জানিয়েছে, দুটি ঝড় আলবামার টাসকালোসা থেকে প্রায় ৩০ মাইল উত্তরে বয়ে গেছে। ঝড়ের কারণে রাস্তার মাঝখানে গাছ ভেঙে পড়েছে এবং অবকাঠামোগত ক্ষতির খবরও পাওয়া গেছে।

এছাড়া বার্মিংহামের পূর্বাঞ্চলের পেল সিটি এবং শহরটির দক্ষিণ-পূর্বে শেলবি কাউন্টিতে ঝড়ের খবর পাওয়া গেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ঝড়ের পূর্বাভাস পর্যবেক্ষণ সংস্থা জানিয়েছে- আলবামা, কেন্টাকি, মিসিসিপি এবং টেনেসিতে গাছ এবং বিদ্যুতের লাইন ভেঙে পড়ার খবর পাওয়া গেছে।

আলবামাতে বৃহস্পতিবার রাতে প্রায় ২৪ হাজার গ্রাহক বিদ্যুৎহীন ছিলেন। টেনেসিতে ১৬ হাজার বাড়ি এবং ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বিদ্যুৎহীন ছিল। অন্যদিকে কেন্টাকি এবং ওয়েস্ট ভার্জিনিয়ায় ১০ হাজারের বেশি গ্রাহক ছিলেন অন্ধকারে।

যুক্তরাষ্ট্রের উত্তরাঞ্চলে দুই কোটি ৪০ লাখের বেশি মানুষ শীতকালীন ঝড়ের সতর্কতা বা পরামর্শের অধীনে থেকেছে। আবহাওয়া পূর্বাভাস কেন্দ্র গতকালই বলেছে, শীতকালীন ঝড় (উচ্চ গতির) শুক্রবার সকালে দক্ষিণাঞ্চলের সমভূমিতে বাড়তে পারে। শুক্রবার প্রথম দিকে মধ্য ও পূর্ব মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে আবহাওয়ার বিপত্তির আধিক্য তৈরির আশঙ্কা রয়েছে।

ব্রিটেনে রেড অ্যালার্ট

ব্রিটেন শীতকালীন শক্তিশালী ঝড় ‘ইউনিস’-এর মুখোমুখি। আজ শুক্রবার সে দেশে ঘণ্টায় ৯০ কিলোমিটার বেগে আঘাত হানতে যাচ্ছে ঝড়টি। দেশটির সরকার এরই মধ্যে বিদ্যুৎ বিপর্যয়ের এবং ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কায় রেড অ্যালার্ট জারি করেছে।

বরিস জনসনের প্রশাসন ঝড়ের ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলায় ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে। আজ শুক্রবার সে দেশের ডেভন, কর্নওয়াল, সমারসেট এবং দক্ষিণ ওয়েলসের উপকূলের লাখ লাখ বাসিন্দাকে বাড়ি থেকে বের হতে নিষেধ করা হয়েছে।

স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোর খবরে বলা হয়েছে, সকাল ৭টা থেকে ১২টা পর্যন্ত ৯০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ো বাতাস বয়ে যেতে পারে। এজন্য সর্বোচ্চ সতর্ক সংকেত দেখানো হয়েছে।

সূত্র: সিএনএন, বিবিসি।

সংবাদটি শেয়ার করুন